দেরিতে মামলা রজু করায় ওসিকে কারণ দর্শানোর আদেশ

দেরিতে মামলা রজু করায় ওসিকে কারণ দর্শানোর আদেশ

ফাইল ছবি

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ


নওগায় বদলগাছীতে আদালতের আদেশের পরও মামলা রজু করতে দেরি করায় বদলগাছি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আতিকুল ইসলামকে কারণ দর্শানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার নওগাঁর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম এই আদেশ দেন।

নওগাঁর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বেঞ্চ সহকারী রেজাউল করিম বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করে বলেন, গত ১০ এপ্রলি মোঃ নূরুল ইসলাম নামে একজন বাদি নওগাঁর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মোঃ ফারুকসহ ছয় জনের বিরুদ্ধে নালিশী দরখাস্ত করেন। পরে নালিশী আবেদনটি এজাহার হিসেবে রজু করার নির্দেশ দেন নওগাঁর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম।

নালিশী দরখাস্তটি আদেশ পাওয়ার ২৪ ঘন্টার মধ্যে এজাহার হিসেবে গণ্য করে মামলা রজু করতে নির্দেশ দেন আদালত। কিন্তু বদলগাছী থানার অফিসার ইনচার্জ আদালতের আদেশ পাওয়ার ১২ দিন পর মামলা রজু করেন। সে কারণে পুলিশ আইনের ২৯ ধারার অভিযোগ আমলে নিয়ে কেন তাকে শাস্তি প্রদান করা হবে না জানতে চেয়ে আগামি ২২ মে তারিখে সংশ্লিষ্ট আদালতে স্বশরীরে হাজির হয়ে কারণ দর্শানোর আদেশ দেন আদালত।

বিষয়টি আদালতের বৈধ আদেশ লংঘন এবং আদালত অবমনার শামিল হিসেবে গণ্য করেছেন আদালত। আদেশে আদালত বলেন, আদালতের বৈধ আদেশ ইচ্ছাকৃতভাবে অমান্যর করে ধৃষ্টতা দেখিয়েছেন বদলগাছি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। সে কারণে পুলিশ আইনের ২৯ ধারার অভিযোগ আমলে নিয়ে কেন তাকে শাস্তি প্রদান করা হবে না জানতে চেয়ে আগামি ২২ মে তারিখে সংশ্লিস্ট আদালতে স্বশরীরে হাজির হয়ে কারণ দর্শানোর আদেশ দেন আদালত।

আদালত সূত্রে জানা যায়, গত ১০ এপ্রিল নূরুল ইসলাম বাদী হয়ে ফারুকসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে নালিশী দরখাস্ত করেন। জখমীদের পরীক্ষা করে ওইদিনই ফৌজদারি ১৫৬(৩) ধারার বিধানমতে নালিশী দরখাস্তটি পাওয়ার ২৪ ঘন্টার মধ্যে এজাহার হিসেবে গণ্য করে মামলা রজু করতে বদলগাছি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।

আদালত হতে ১১ এপ্রিল আদেশটি পাঠানো হয় নেজারত শাখায়।

পরে নেজারত শাখা আদেশটি ২১ এপ্রিল পোস্ট অফিসের মাধ্যমে ২৬ এপ্রিল বদলগাছি থানায় পাঠানো হয় এবং সেখানে সেলিম নামের পুলিশ সদস্য স্বাক্ষর করে আদেশের টিঠিটি গ্রহন (রিসিভ) করেন।

পরবর্তীতে ৮ মে নালিশী দরখাস্তটি মামলা হিসেবে থানায় রজু করেন বদলগাছি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ম্ঃো আতিকুল ইসলাম।

এ ব্যাপারে বদলগাছী থানার ইনচার্জ মোঃ আতিকুল ইসলাম বলেন, আদালতের কারণ দর্শানোর বিজ্ঞ আদালতে জবাব দেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




বিজ্ঞাপন

সর্বস্বত্ব সত্বাধিকার সংরক্ষিত © tulshigonga.com © এই পোর্টালের নিউজ ও ছবি অনুমতি ছাড়া কপি নিষেধ  
Design BY NewsTheme