ধর্ষণের দায়ে রবিনহোর ৯ বছরের কারাদণ্ড

ধর্ষণের দায়ে রবিনহোর ৯ বছরের কারাদণ্ড

অনলাইন ডেস্ক:


২০১৩ সালে মিলানের নাইটক্লাবে এক নারীকে ধর্ষণের দায়ে ব্রাজিলের সাবেক ফরোয়ার্ড রবিনহোর ৯ বছরের কারাদণ্ড বহাল রেখেছে আদালত।এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেছিলেন ৩৭ বছর বয়সী তারকা। কিন্তু চূড়ান্ত আবেদনে হেরে গেছেন রবিনহো।

বুধবার রোমের সুপ্রিম কোর্ট রবিনহোর ৯ বছরের কারাদণ্ডের পুরোনো রায় বহাল রাখার আদেশ দেন। ২০২০ সালের ডিসেম্বরে এই রায়ের বিরুদ্ধে আবেদন করেছিলেন তিনি।

এসি মিলানের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ থাকাকালীন ২০১৭ সালে রবিনহো এবং তার আরও পাঁচ ব্রাজিলিয়ান বন্ধু মিলে মিলানের নাইটক্লাবে ২২ বছর বয়সী এক আলবেনিয়ান নারীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ করেন। এই অভিযোগে আদালতে দোষী সাব্যস্ত হন সাবেক ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।  তবে রবিনহো নিজ দেশে থাকায় তার সাজা ভোগ করার সম্ভাবনা নেই। ব্রাজিলের সংবিধান তার নাগরিকদের প্রত্যর্পণ নিষিদ্ধ করেছে। তবে দক্ষিণ আমেরিকার দেশটিতে রবিনহোকে সাজা দেওয়ার ব্যাপারে অনুরোধ করতে পারে ইতালি।

ব্রাজিলের হয়ে ১০০ ম্যাচে খেলেছেন রবিনহো। সান্তোসের হয়ে ক্যারিয়ার শুরু করে ২০০৫ সালে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেন তিনি। সেখানে চার মৌসুমে দুটি লা লিগা জেতার পর ২০০৮ সালে তখনকার ব্রিটিশ রেকর্ড ফি’তে ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দেন রবিনহো। কিন্তু ইংল্যান্ডে ফর্মহীনতার কারণে ২০১০ সালের জানুয়ারিতে ধারে সান্তোসে ফেরেন তিনি। একই বছরে ব্রাজিলিয়ান তারকার সঙ্গে চুক্তি করে মিলান। সান সিরোতে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ছিলেন তিনি। সে সময় এই অপরাধ করেন রবিনহো। এরপর ফের ব্রাজিল, চীন ও তুরস্কের ফুটবল খেলে চতুর্থবারের মতো সান্তোসে যোগ দেন তিনি। কিন্তু ধর্ষণ মামলা চলাকালীন রবিনহোকে ফেরানোয় সমালোচনার মুখে পড়ে এই চুক্তি বাতিল করে ব্রাজিলিয়ান ক্লাবটি।

মন্তব্য করুন

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




বিজ্ঞাপন

সর্বস্বত্ব সত্বাধিকার সংরক্ষিত © tulshigonga.com © এই পোর্টালের নিউজ ও ছবি অনুমতি ছাড়া কপি নিষেধ  
Design BY NewsTheme